এক নজরে দেখেনিন সুপার এইটে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ যারা

আজ নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। টস হেরে আগে ব্যাটিং শুরু করেছে টাইগাররা। ব্যাট করতে নেমেই শুরুতেই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ৩ বলে ১ রান করে ফিরেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। ২ বলে ১ রান করেন লিটন দাস।

তবে বাংলাদেশের শুরু বিপর্যয় সারিয়ে তোলেন তানজিদ তামিম ও সাকিব। তানজিদ তামিমকে সাথে নিয়ে ৩২ বলে ৪৮ রানের পার্টনারশীপ করেন সাকিব। ২৬ বলে ৩৫ রান করে তানজিদ তামিম ফিরলে ভাঙে জুটি।

এরপর ব্যাটিংয়ে আসেন তাওহীদ হৃদয়। তবে আজকে ভালো কিছু করতে পারেনি তিনি। ১৫ বলে ৯ রান করে তাওহীদ হৃদয়। এরপর মাহমুদউল্লাহর সাথে জুটি গড়েন সাকিব। ২১ বলে ২৫ রান করে মাহমুদউল্লাহ ফিরলে ভাঙে জুটি। তবে একদিকে ফিফটি তুলে নিয়েছেন সাকিব। শেষ পর্যন্ত ৪৬ বলে ৬৪ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। ৭ বলে ১৪ রান করে অপরাজিত থাকেন জাকের আলী।

নির্ধারীত ২০ ওভার শেষে ৪ উইকেটে ১৫৯ রান স্কোর বোর্ডে জমা করেছে বাংলাদেশ। ফলে জয়ের জন্য নেদারল্যান্ডসের ১৬০ রান প্রয়োজন। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৩৪ রানে থামে নেদারল্যান্ডস। ফলে ২৫ রানের জয় পায় বাংলাদেশ। বাংলাদেশের জয়ের দিনে ম্যাচ সেরা হয়েছেন সাকিব আল হাসান। ৪৬ বলে ৬৪ রান করে ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন তিনি।

ফিক্সচার অনুযায়ী ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও আফগানিস্তানকে গ্রুপ ওয়ানে পাবে বাংলাদেশ। ভারত ও অস্ট্রেলিয়া এরই মধ্যে নিশ্চিত করেছে সুপার এইট। আফগানিস্তান সেই পথেই আছে। এক্ষেত্রে সময়সূচিটাও নির্ধারিত। সুপার এইটে ২১ জুন সকাল সাড়ে ছয়টায় অ্যান্টিগাতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। পরদিন ২২ জুন রাত সাড়ে আটটায় অ্যান্টিগাতেই ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচ বাংলাদেশের। সবশেষ ২৫ জুন সকাল সাড়ে ছয়টায় সেন্ট ভিনসেন্টে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সুপার এইটের তৃতীয় ম্যাচ।

নাজমুল হোসেন শান্তদের সুযোগ রয়েছে বিশ্বকাপের সফর আরও লম্বা করার। আরও সাফল্য নিয়ে আসার। নিজেদের পারফরম্যান্সে তারা কতদূর যেতে পারেন সেটাই দেখার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

বাংলাদেশ- ১৫৯/৫ (২০ ওভার) (শান্ত ১, লিটন ১, তানজিদ ৩৫, সাকিব ৬৪*, মাহমুদউল্লাহ ২৫)

নেদারল্যান্ডস- ১৩৪/৮ (২০ ওভার) (এঙ্গেলব্রেখট ৩৩, বিক্রমজিত ২৬, এডওয়ার্ডস ২৫; রিশাদ ৩/৩৩, তাসকিন ২/৩০)

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top