নানান নাটকীয়তার পর বাংলাদেশের জয়, সুপার এইট নিশ্চিত!

নেপালের বিপক্ষে নিজেদের ব্যাটিং দৈন্যদশার সবটাই যেন দেখিয়ে দিলো বাংলাদেশ। সুপার এইটে ওঠার জন্য জয়ের বিকল্প নেই– এমন সমীকরণ মাথায় রেখে ব্যাট করতে নেমেছিল টাইগাররা। কিন্তু খর্বশক্তির দলের বিপক্ষে, মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচেই কি না আসরের সবচেয়ে লজ্জাজনক ব্যাটিং করল বাংলাদেশ।

মাত্র ১০৭ রানের টার্গেট দিয়ে ফিল্ডিংয়ে নেমে বিশেষ কিছু করার চেষ্টায় ছিলেন টাইগার বোলাররা। সেটাই করে দেখালেন তানজিম হাসান সাকিব। প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে এক ইনিংসে দুই মেডেন নেয়ার রেকর্ড গড়ার পাশাপাশি চার ওভারে রান দিয়েছেন ৭। উইকেট তুলে নিয়েছেন চারটি।

অথচ ব্যক্তিগত প্রথম বলেই চার খেয়ে বসেন এই বোলার। ওই ওভারে দেন ৫ রান। দ্বিতীয় ওভারে বোলিংয়ে এসে তিন বলের ব্যবধানে শিকার করেন দুই উইকেট। তার ফুলটস মিস করে বোল্ড হন নেপালের ওপেনার কুশল। এক বল পর তুলে মারতে গিয়ে নাজমুল হোসেন শান্তর হাতে ধরা পড়েন অনিল শাহ। জোড়া উইকেটের সঙ্গে মেডেন নেন তানজিম।

পরে ওভারে নেপালের অধিনায়ক রোহিতে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে ক্যাচ তুলে দেন রিশাদ হোসেনের হাতে। তৃতীয় শিকারে উল্লাসে মাতেন জুনিয়র সাকিব।

নেপালকে ২১ রানে হারিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে ‘ডি’ গ্রুপ থেকে সুপার এইটে উঠে গেল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। লো স্কোরিং ম্যাচে বাংলাদেশের জয়ে দুর্দান্ত বোলিং করেন পেস বোলার তানজিদ হাসান সাকিব, মোস্তাফিজুর রহমান ও সাকিব আল হাসান।

সোমবার আগে ব্যাট করে ১৯.৩ ওভারে ১০৬ রানে অলআউট হয়। টার্গেট তাড়া করতে নেমে ১৯.২ ওভারে ৮৫ রানে অলআউট হয় নেপাল। ২১ রানের জয়ে সুপার এইটে উঠে যায় বাংলাদেশ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top