সালাউদ্দিনকে বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ বানাতে চেয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য নাফিসার!

শেষ হয়েছে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিশন। সুপার এইটের শেষ ম্যাচে সেমি ফাইনালের কঠিন সমীকরণ মেলাতে পারেনি বাংলাদেশ। আসলে মেলাতে পারেনি নয় মেলানোর চেষ্টা করেনি শান্তা বাহিনী। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ হেরে সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই বলেন অধিনায়ক শান্ত।

যেটা ভক্ত সমর্থকদের ব্যাপক ভাবে কষ্ট দিয়েছে। চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রাপ্তি কেবল রিশাদ হোসেন। বাংলাদেশের কোনো ভালো মানের লেগ স্পিনার ছিল না। সেই আক্ষেপ হয়তোবা ফুরাচ্ছে। ৭ ম্যাচে ১৪ উইকেট শিকার করেছেন তিনি।

বাংলাদেশের বোলারা ‍দুর্দান্ত করেছেন এবারের বিশ্বকাপে। যদি ব্যাটার ৫০ শতাংশ সাপোর্ট করতো বোলারদের তাহলে এবারের বিশ্বকাপে ভালো কিছু হতো পারতো। কিন্তা ব্যাটারদের ব্যর্থতায় সুপার এইট থেকে লজ্জাজনক ভাবে ফিরতে হয়েছে বাংলাদেশকে। ব্যাটারদের সাথে কোচ হাথুর সিংহে ও নাজমুল হোসেন শান্ত’র অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

চারে দিকে সমালোচনা হচ্ছে শান্ত’র অধিনায়কত্ব নিয়ে। এই বিষয়ে সামনে ২ তারিখ বোর্ড মিটিংয়ে বসবে বিসিবি। সেখানে সিদ্ধান্ত হতে পারে কোচ চন্ডিকা হাথুরু সিংহে ও নাজমুল হোসেন শান্ত’র বিষয়ে।

তবে যত দুর জানা গেছে চন্ডিকা হাথুরু সিংহের সাথে চুক্তি বাড়াচ্ছে না বিসিবি। আর তিন ফরমেটে অধিনায়কের দায়িত্ব থেকে ছেঁটে ফেলা হতে পারে নাজমুল হোসেন শান্তকে। এমনকি কোচন্ডিকা হাথুরু সিংহকে বহিষ্কার করতে পারে বিসিবি। তবে জানা গেছে ২০২৫ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করতে চান চন্ডিকা হাথুরু সিংহে।

বিশ্বকাপ মিশন শেষ করে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। সুপার এইট পর্যন্ত গেলেও বিশ্বকাপের ওভার অল পারফর্ম্যান্স নিয়ে হতাশ বিসিবি থেকে শুরু করে বাংলাদেশের দর্শকরাও। বিশ্বকাপের সব থেকে বড় প্রাপ্তি হলো রিশাদ হোসেন। আর এই রিশাদ হোসেনই উঠে এসেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের দল থেকে কোচ সালাউদ্দিনের হাত ধরে। রিশাদ হোসেনকে নিয়ে গর্ব করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মালিক নাফিসা কামাল তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন সেই সাথে সালাউদ্দিনকে বাংলাদেশের প্রধান কোচ হিসেবে দেখতে চান তিনি।

তিনি বলেছেন, “বাংলাদেশের বেশির ভাগ প্লেয়ার কিন্তু উঠে আসে বিপিএল থেকে। বিপিএল কিন্তু ঠিকি তার কাজ করে যাচ্ছে। কিন্তু এই সব প্লেয়ার কি কারণে যে জাতীয় পর্যায়ে তাদের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারে না তা আমার জানা নেই। দেখুন এবারের বিশ্বকাপের সেরা পারফর্মার রিশাদ হোসেন কিন্তু আমাদের দল থেকে উঠে এসেছে। সে আমাদের গর্ব। তাছাড়া লিটন দাস, সাইফুদ্দিন, তানভির সবাই কিন্তু কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সেরই খেলোয়াড়। তাছাড়া আমাদের কোচ সালাউদ্দিন ভাই দেশের সেরা কোচ। তাকে অবশ্যই আমি বাংলাদেশের প্রধান কোচ হিসেবে দেখতে চাই। তার জন্য আমরা বিসিবির সাথের সরাসরি বসবো।”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top